Quantcast
  • শুক্রবার, ১৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৭ নভেম্বর ২০২০

পেরুর মাঠে উড়ল আর্জেন্টিনার বিজয়পতাকা


সাতকাহন ডেস্ক | আপডেট: ১২:৪১, নভেম্বর ১৮, ২০২০
 
 
 
 


কাতার বিশ্বকাপে দক্ষিণ আমেরিকান অঞ্চলের বাছাই পর্বে জয়ে ফিরল আর্জেন্টিনা। সর্বশেষ তিনটি ম্যাচে গিয়ে সেখানে ড্র করতে হয়েছিল। তবে আজ প্রথমার্ধের ৩০ মিনিটের মধ্যেই আর্জেন্টিনা এমন খেলা খেলল, পেরুর দুর্গটা জয় করে তাতে ওড়ানো হয়ে গেল বিজয়পতাকাও। মন ভরিয়ে দেওয়ার মতো এক প্রথমার্ধেই আর্জেন্টিনা এগিয়ে গেছে ২-০ গোলে, দ্বিতীয়ার্ধে তেমন কিছু করতে না পারলেও এই ব্যবধানেই জিতে গেছে ম্যাচ। নিকো গঞ্জালেজের পর লাউতারো মার্টিনেজই আজ ব্যবধান গড়ে দিয়েছেন লিমায়।প্রতিপক্ষের মাঠে শুরু থেকেই দাপট দেখায় আর্জেন্টিনা। বারবার আক্রমণে গোলের সুযোগ তৈরি করছিল অতিথিরা। সেজন্য গোল পেতে বেশি সময় অপেক্ষা করতে হয়নি। ১৭ মিনিটে জিওভানি লো সেলসোর ক্রস থেকে ডি বক্সের ভেতরে বল পান নিকোলাস গনজাসেল। আলতো টোকায় রক্ষণের এক খেলোয়াড়কে কাটিয়ে বামপায়ে শট নিয়ে পেরুর জালের পাঠান গনজালেস।

১১ মিনিট পর ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মার্টিনিজ। মধ্যমাঠ থেকে লেনার্ডো পেরেডেসের বানিয়ে দেওয়া বল নিয়ে ডি বক্সে ঢুকেন মার্টিনিজে। গোল রক্ষক এগিয়ে এসে বল ধরতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তাকে ড্রিবলিং করে বল নিয়ে আরো ভেতরে ঢুকেন ফরোয়ার্ড। এরপর বামপায়ের শটে বল পাঠান জালে।ম্যাচের শুরুতেই দুই গোলের লিড পেয়ে যাওয়ায় আর্জেন্টিনা বাকিটা পথ স্বস্তিতে কাটিয়ে দেয়। মধ্যমাঠে মেসি ছিলেন বল বানিয়ে দেওয়ার ভূমিকায়। সতীর্থদের একাধিক বল পাস করছিলেন আর্জেন্টাইন অধিনায়ক। একাধিক সুযোগও তৈরি হয়েছিল। ফরোয়ার্ডরা ফিনিশিং করতে পারলে জয়ের ব্যবধান বাড়ত। মেসি নিজেও সুযোগ সৃষ্টি করেছিলেন। ৩৮ মিনিটে তার বাঁকানো শট একটুর জন্য লক্ষ্যে থাকেনি। ৭৪ মিনিটে মেসির শট দারুণ দক্ষতায় ফিরিয়েছেন গোলরক্ষক।