Quantcast
  • বৃহস্পতিবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ২৪ জুন ২০২১

ঈশ্বরদীতে খুঁটিতে বেঁধে দুই যুবককে নির্যাতন!


সাতকাহন ডেস্ক | আপডেট: ১৭:৫৬, এপ্রিল ৩০, ২০২১
 
 
 
 


পাবনা জেলার ঈশ্বরদীতে ভেজাল মধু সরবরাহের অপবাদে খুঁটিতে বেঁধে মাথার চুল কেটে আপন দুই সহোদরকে নির্যাতনের অভিযোগ পাওয়া গেছে।তারা হলেন দাশুড়িয়া ইউনিয়নের দাঁদপুর গ্রামের আলম সরদারের দুই ছেলে আল আমিন (২৪) আলাল সরদার (১৮)।বৃহস্পতিবার (২৯ এপ্রিল) দুপুরে সাহাপুর ইউনিয়নের আওতাপাড়া নুরজাহান বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে এ ঘটনা ঘটে।পারিবারিক ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, ভিলেজ ফ্রেশ ফুড অ্যান্ড এগ্রো কোম্পানিতে মুধু সরবরাহ করত দুই ভাই । সরবরাহকৃত মধু ভেজালের অপবাদে সকাল থেকে দুই ভাইকে বিদ্যুতের খুঁটির সঙ্গে বেঁধে রাখে কর্মচারীরা এবং বেদরম মারপিট করে মাথার চুল কেটে দেয় দোকান মালিক । পরে স্থানীয় লোকজনের প্রতিবাদের মুখে জিসান তাদের ছেড়ে দেয়।শুক্রবার( ৩০ এপ্রিল ) দুপুরে মারধরের ব্যাপারটি স্বীকার করে জিসান হোসেন জানান, তার প্রতিষ্ঠান মধুসহ বিভিন্ন খাদ্য সামগ্রী বাজারজাত করে। এ প্রতিষ্ঠানে পাইকারি খাটি মধু সরবরাহের জন্য প্রায় এক বছর আগে চুক্তিবদ্ধ হন আল আমিন ও আলাল। প্রথমে খাঁটি মধু সরবরাহ করলেও কিছুদিন পর থেকেই ভেজাল মধু সরবরাহ করতে থাকেন। গ্রাহকরা এ ভেজাল মধুর বিষয়ে অভিযোগ দিতে থাকেন। বিষয়টি তাদের জানালে নানা তালবাহানা করতে থাকেন। এ বিষয়ে ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসাদুজ্জামান আসাদ বলেন, ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে দুই যুবক নির্যাতনের খবর এক সাংবাদিকের কাছে জানতে পারি। এ বিষয়ে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।