Quantcast
  • বৃহস্পতিবার, ৮ মাঘ ১৪২৭, ২১ জানুয়ারি ২০২১

বিএসইসির চিঠি পেল ৩৪ ব্যাংক


সাতকাহন ডেস্ক | আপডেট: ১৮:০৩, জুলাই ০১, ২০২০
 
 
 
 


বাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ অ্যান্ড এক্সচেঞ্জ কমিশন (বিএসইসি) চিঠি দিয়েছে তালিকাভুক্তসহ মোট ৩৪টি ব্যাংককে । পুঁজিবাজারে তারল্য বৃদ্ধি পাওয়ায় বিশেষ তহবিলের অবস্থা সম্পর্কে জানতে বিএসইসির পক্ষ থেকে ৩৪টি ব্যাংককে গত সোমবার ওই চিঠি দেয়া হয়। এ  চিঠি পাওয়ার সাত দিনের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ব্যাংকগুলোকে প্রতিবেদন পাঠাতে বলা হয়েছে। চলতি সপ্তাহে বাকি ব্যাংকগুলোকেও বিএসইসি চিঠি দেবে বলে সংশ্লিষ্ট সূত্র বিষয়টি নিশ্চিত করেছে। পুঁজিবাজারে অর্থ বিনিয়োগ করেনি এমন তালিকাভুক্ত  ৩৪ টি ব্যাংককে চিঠি দিয়েছে বিএসইসি ।

জানা গেছে, পুঁজিবাজারে তারল্য সংকট দূর করতে তফসিলী ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ বাড়ানোর সুযোগ করে দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক। প্রতিটি ব্যাংককে দু’শ’কোটি টাকার বিশেষ তহবিল গঠন করার সুযোগ দেয়া হয়েছে। এতে করে ব্যাংকগুলোর পুঁজিবাজারে প্রায় ১২ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনা সত্বেও ব্যাংকগুলো সেই অর্থ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করেনি। এই তহবিল গঠনের নির্দেশনা গত ২ ফেব্রুয়ারী জারি করার পর মাত্র ৭/৮টি ব্যাংক তহবিল গঠনের কথা জানায়।কিন্তু ওই তহবিল থেকে বাস্তবে কত টাকা বিনিয়োগ হয়েছে তা প্রকাশ করেনি। আর বাকি ব্যাংকগুলো গত পাঁচ মাসে তহবিল গঠনের কোনো উদ্যোগই নেয়নি।

উল্লেখ্য, পুঁজিবাজারে তফসিলি ব্যাংকগুলোর বিনিয়োগ বাড়ানোর সুযোগ করে দিতেই আলোচিত তহবিল সরবরাহের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। ২০২৫ সালের ১৩ জানুয়ারি পর্যন্ত যে কোনো তফসিলি ব্যাংক রেপোর মাধ্যমে এই সুবিধা গ্রহণ করতে পারবে। এক্ষেত্রে সুদ পরিশোধ করতে হবে মাত্র ৫ শতাংশ।সংশ্লিষ্টরা জানান, ব্যাংকগুলোর নিকট থেকে শেয়ারবাজার নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিএসইসি প্রতিবেদন পাওয়ার পর পরবর্তী পদক্ষেপের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। বিশেষ করে তহবিল গঠন ও এর অর্থ পুঁজিবাজারে বিনিয়োগ করার বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্দেশনার বিষয়ে ব্যাংকগুলোর অবস্থান জানতে চেয়েছে বিএসইসি।