Quantcast
  • বৃহস্পতিবার, ১০ আষাঢ় ১৪২৮, ২৪ জুন ২০২১

কালিহাতীতে টিউবয়েলের পানিতে চেতনা নাশক দ্রব্য মিশিয়ে দুর্ধর্ষ চুরি


ইমরুল হাসান বাবু ,স্টাফ রিপোর্টার | আপডেট: ২০:৩৭, মে ২৭, ২০২১
 
 
 
 


টাঙ্গাইলের কালিহাতীতে টিউবয়েলের পানিতে চেতনানাশক মিশিয়ে পরিবারের সবাইকে অচেতন করে দুর্ধর্ষ চুরির ঘটনা ঘটেছে।বুধবার ( ২৬মে ) দিবাগত রাতে ভিয়াইল বাজার সংলগ্ন বেপারী পাড়া রাইজ উদ্দিনের বাড়িতে এ চুরির ঘটনা ঘটে। এসময় ৫-৬ ভরি স্বর্ণ, নগদ প্রায় বিশ হাজার টাকা ও একটি পাসপোর্টও চুরি হয়। বাড়ির মালিক রাইজ উদ্দিন বলেন, প্রতিদিনের মতোন এশার নামাজ ও রাতের খাবার শেষে দশটায় শোবার সময়ের আগেই বাড়ির সকলের শরীর দুর্বল ও ঘুম ঘুম লাগলে ঘুমিয়ে পড়ি। ঘুমের কারণে ফজরের নামাজও জামাতে পড়তে পারিনি। সকালে পাশের বাড়ির লোক জন ডেকে তোলে। আমার ধারণা টিউবওয়েলে অচেতন করার কোনও ঔষধ মিশিয়ে দুইটা দরজার সিটকিনি ও খিল সোজা টিন কেটে ঘরে ঢুকে স্টিলের ড্রয়ার ভেঙ্গে ৫-৬ ভরি স্বর্ণ, নগদ প্রায় বিশ হাজার টাকা ও একটি পাসপোর্ট চুরি যায়।রাইজ উদ্দিনের ছেলে রৌহা মাদরাসার শিক্ষক হাফেজ আব্দুল হালিম চুরির ঘটনায় জড়িতদের সনাক্ত করে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি নিশ্চিতের দাবি জানান।স্থানীয় ইউপি সদস্য মুক্তার আলী সরকার ও স্থানীয় প্রশাসেনর নিকট চেতনা নাশক দ্রব্য বা ঔষধ নিষিদ্ধের দাবি জানান। স্থানীয় ফারুক, বেলায়েত, মকবুল সহ আরো ৪/৫ জন বলেন, এধরণের চেতনা নাশক ব্যবহার করে চুরি পাশাপাশি যে কোনও রকম বড় ধরনের দুর্ঘটনা ঘটে আইন শৃংখলার ব্যাপক অবনতিও ঘটতে পারতো। তাই এর কেনা-বেচা ও ব্যবহার নিয়ন্ত্রন এবং নিষিদ্ধ করা দরকার।কালিহাতী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোল্লা আজিজুর রহমান বলেন, এ ধরণের কোনও অভিযোগ আমি পাইনি, খোঁজ নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, চেতনা নাশক দ্রব্যের বিষয়টি আইন শৃংখলা সভায় উত্থাপন করা হবে।