Quantcast
  • রবিবার, ৪ মাঘ ১৪২৭, ১৭ জানুয়ারি ২০২১

পৌর নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, পাল্টা পাল্টি মামলা


সাতকাহন ডেস্ক | আপডেট: ১১:৩৪, জানুয়ারি ১২, ২০২১
 
 
 
 


শ্রীপুর পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষ, ভাংচুর ও ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনায় আওয়ামী লীগ ও বিএনপির নেতারা একে অপরকে অভিযুক্ত করে পাল্টাপাল্টি মামলা দায়ের করেছেন।


সোমবার রাতে শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, শ্রীপুর পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নূরে আলম মোল্লাহ বাদী হয়ে বিএনপির ১১২ জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ করে মামলা করেছেন। এতে অজ্ঞাত আরো ২০০-২৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে। অন্যদিকে বিএনপির মেয়র প্রার্থী অ্যাডভোকেট কাজী খান বাদী হয়ে আওয়ামী লীগের ২৩ জন নেতাকর্মীর নাম উল্লেখ ছাড়াও অজ্ঞাত আরো ২০০-২৫০ জনকে আসামি করা হয়েছে। ধানের শীষ প্রতীকের প্রার্থীর দায়ের করা মামলায় দৈনিক দিনকালের শ্রীপুর প্রতিনিধি বশির আহমেদ কাজলও আসামি হয়েছেন।আওয়ামলীগ নেতা নূরে আলম মোল্লার দায়ের করা মামলার বিবরণে জানা যায়, ‌‘স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করতে যাওয়ার সময় রোববার সকালে বিএনপির নেতাকর্মীরা আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের ওপর হামলা করে। এ সময় বিএনপির  নেতাকর্মীরা পিস্তল দিয়ে গুলি ছুঁড়ে জনমনে আতঙ্ক সৃষ্টি করে।’বিএনপির প্রার্থী ও পৌর বিএনপির সভাপতি অ্যাডভোকেট কাজী খানের মামলার বিবরণে জানা যায়, ‘ওইদিন আওয়ামী লীগ নেতাদের নির্দেশে তার নির্বাচনী কার্যালয়ে হামলা করে নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা। এতে তিনিসহ বেশ কয়েকজন বিএনপির নেতাকর্মী আহত হন। কার্যালয়ে থাকা আসবাবপত্র ভাংচুর করা হয়। এ ঘটনায় বিএনপির মুখপত্র দৈনিক দিনকালের শ্রীপুর প্রতিনিধি বশির আহমেদ কাজলকেও আসামি করেছেন ধানের শীষের প্রার্থী কাজী খান।’শ্রীপুর থানার ওসি খোন্দকার ইমাম হোসেন বলেন, দুই দলের পক্ষ থেকে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার পর রোববার রাতেই মামলা দু’টি রুজু করা হয়।