Quantcast
  • বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ অগাস্ট ২০২০

করোনাকালে প্রাণীকূল পেয়েছে অবাধ স্বাধীনতা


সাতকাহন ডেস্ক | আপডেট: ১৯:০৭, জুলাই ০৫, ২০২০
 
 
 
 



আজ থেকে কয়েকমাস আগে সারা পৃথিবীতে মরণব্যাধি করোনাভাইরাসের আগমন ঘটে ।আঘাত আনে সাধারণ মানুষের  জীবণ জিবিকার উপর । অনেক মানুষ কাজহীন হয়েছে পড়েছে । অপরদিকে সারাদেশের সকল পযটন কেন্দ্রগুলো বন্ধ রাখা হয়েছে । করোনাকালে পযটক কেন্দ্রগুলোতে দশকশূন্যতায় প্রাণীকূল রুপ নিয়েছে অপার সৌন্দয়ে । করোনাকালে মানুষের উপস্থিতি একেবারেই নেই গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু সাফারি পাকে । দশকশূন্যতার অবকাশে নিব্রিত যতনে মনের আনন্দে বাড়ছে নিব্রিত বনভূমি । পরিবেশের নিস্তব্ধতায় উদ্বীপ্ত প্রাণীকূল । সবুজের শ্যামল আবহে গোলজার হেচ্ছে সাফারিতে থাকা  পশুপাখিদের আনন্দের আশ্রম । প্রকৃতি সেজেছে অপরুপ সাজে । মনের আনন্দে ছুটাছুটি করছে প্রাণীকূল । পাকের ভেতরে বণ্য প্রাণীদের জন্য নিদিষ্ট এলাকায় দেখা মেলে জেব্রাদের । পযটকদের চলাচলের রাস্তায় রাজত্ব করছে  তাঁরা । মানুষের আনাগোনা না থাকায় প্রাণীকূল পেয়েছে অবাধ স্বাধীনতা । সবুজে ঢাকা প্রান্তরে দেখা মেলে বাচ্ছাসহ মা ভাল্লুকের । তাই দেখে মনে হয় এখন তদাঁদের স্বণ সময় চলছে । সাফারী পাকের ভারপ্রাপ্ত কমকতা ও সহকারী বন সংরক্ষক তবিবুর রহমান জানান, দশকদের আনাগোনা না থাকায় পাকের প্রাণীকূল পেয়েছে অবাধ স্বাধীনতা । মুক্তভাবে বসবাস করছেন তাঁরা ।