Quantcast
  • বৃহস্পতিবার, ২৩ বৈশাখ ১৪২৮, ০৬ মে ২০২১

টাঙ্গাইলের আদালত প্রাঙ্গনে রক্তলাল কৃষ্ণচূড়ার নয়নজুড়ানো হাসি!


ইমরুল হাসান বাবু ,স্টাফ রিপোর্টার | আপডেট: ২০:২০, এপ্রিল ২৯, ২০২১
 
 
 
 


টাঙ্গাইলের শহরের জেলা সদর প্রাঙ্গনে শোভা ছড়াচ্ছে রক্তলাল কৃষ্ণচুড়া । বাঙলার বৈশাখ মানেই ভিন্ন ভিন্ন সাজে সেজেছে বাহারি রংয়ের নানা ফুল। ভরে উঠে বাংলার প্রকৃতি। আকাশে গনগনে তাপমাখা সুর্য। কাঠফাটা রোদ্দুরে তপ্ত বাতাস।গ্রীষ্মের এই নিস্প্রাণ রক্ষতা ছাঁপিয়ে কৃষ্ণচুড়া যেন নিজেকে রেখেছে আপন মহিমায়। সৌন্দর্যময় এই ফুলের নাম কৃষ্ণচুড়া। কিশোরীর কানের দুলের মত দুলছে এই বাহারি রংয়ের কৃষ্ণচুড়া। লাল- হলুদের সৌন্দর্যে মাতোয়ারা করে রেখেছে টাঙ্গাইলের জেলা সদর আদালত প্রাঙ্গনের চারপাশ। গ্রীষ্মের প্রকৃতিতে প্রাণের সজীবতা নিয়ে যে সব ফুল ফুটে তার মধ্য অন্যতম কৃষ্ণচুড়া একটি। হালকা পাতায় বরণ্য লাল সবুজে সবুজাভ। টাঙ্গাইলের জেলা সদরের পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের চারিপাশ জুড়ে রাঙিয়ে রেখেছে এই কৃষ্ণচুড়া ফুল। এ কৃষ্ণচুড়া ফুল শুধু সৌন্দর্য ছড়ায় না বরং পথচারীরা এই তাপদাহে একটু স্বস্তির আশায় প্রাণ জুড়ায় এই কৃষ্ণচুড়া ফুল গাছেরর ছায়ায়। জেলা সদর কোয়াটারে বসবাসরত মো. শাহীন চৌধুরীর সাথে কথা হয় এ কৃষ্ণচুড়া ফুল নিয়ে। তিনি বলেন আমার জন্ম এই কোয়াটারে জন্মের পর থেকে বাহাড়ী রংয়ের কৃষ্ণচুড়া ফুলের সৌন্দর্যরূপ দেখছি। তাপদাহে অনেক পথচারী ও যুগল-যুগলী ছাঁয়া নেয়। তবে ঝড়ে হাওয়ায় এ ফুলগাছের নীচে থাকা নিরাপদ নয়।কারন এর মগডাল খুবই হালকা হয়। কথা পথচারী শিমলা নামের এক পর্যটিকার সাথে তিনি বলেন, জেলা সদর রাস্তায় এলে কৃষ্ণচুড়া ফুলে বাহাড়ী রংয়ে মনটা ভরে যায় তাই সময় পেলে এখানে ছুটে আসি। বিশেষকরে এটা প্রশাসনিক এলাকা হওয়ায় নিরাপদ বটে।