Quantcast
  • বুধবার, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৭, ১২ অগাস্ট ২০২০

শ্রীপুরে চাঁদাবাজির অভিযোগে আটক ৩


সাতকাহন ডেস্ক | আপডেট: ১২:৪৬, জুলাই ০৯, ২০২০
 
 
 
 


শ্রীপুরে এইচএমএম এন্টারপ্রাইজের (ইট, বালু সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান) স্বত্ত্বাধিকারী মজনু মিয়ার কাছে চাঁদা দাবির অভিযোগে ওয়ার্ড আওয়ামী লীগ নেতাসহ তিন যুবককে আটক করেছে শ্রীপুর থানা পুলিশ।  বুধবার দুপুরে উপজেলার তেলিহাটি ইউনিয়নের ছাতির বাজার (মাওনা ফ্যাশন কারখানার সামনে) থেকে তাদের আটক করা হয়। এ ঘটনায় ওই প্রতিষ্ঠানের মালিক মজনু মিয়া পাঁচজনকে অভিযুক্ত করে শ্রীপুর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।  অভিযুক্তরা হলেন- তেলিহাটি ইউনিয়নের উপজেলার টেপিরবাড়ী গ্রামের মমতাজ উদ্দিনের ছেলে ফরহাদ শেখ (৪০), মৃত নাজিম উদ্দিনের ছেলে স্থানীয় ৮নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক নাছির উদ্দিন ফকির (৫৪), কুদ্দুস আলীর ছেলে রফিকুল ইসলাম (২৮), মোফাজ্জল (৩২) ও শামসুল হকের ছেলে কালাম (৫০)। নাছির উদ্দিন ফকির, কালাম ও মোফাজ্জল হোসেনকে চাঁদা দাবির সময় ঘটনাস্থল থেকে আটক করা হয়।  বুধবার বেলা সাড়ে ১১টায় বালু ভর্তী দুটি ট্রাক মাওনা ফ্যাশন কারখানার কারখানার সমানে গেলে আসামিরা ট্রাক দু'টো আটকে গাড়ি প্রতি দেড় হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে এবং বিভিন্ন ধরনের হুমকি দেয়। খবর পেয়ে শ্রীপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল তিন চাঁদাবাজকে আটক করে।   

শ্রীপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খোন্দকার ইমাম হোসেন জানান, চাঁদার দাবিতে গাড়ি আটক রাখার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে তিন চাঁদাবাজকে আটক করা হয়েছে। এইচএমএম এন্টারপ্রাইজের মালিক মজনু মিয়া আবেদনের প্রেক্ষিতে তাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি মামলা দায়ের করা হয়েছে।