Quantcast
  • মঙ্গলবার, ৭ আশ্বিন ১৪২৭, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০

শিরোনাম

আমাদের কথা


গণতান্ত্রিক মানব মুক্তির লক্ষ্যে একটি গনমানুশের মিডিয়া তৈরি” যে মিডিয়া কাজ করবে গনমানুশের মুক্তির লক্ষ্যে, কাজ করবে মানুষের মুক্তচিন্তার বিকাশের লক্ষ্যে, অসহায়, শোষিত এবং বঞ্চিত মানুষের ভাষা প্রকাশ করতে। আর তাই এর সদস্য হবে প্রতিটি মুক্ত মনের মানুষ মানুষ। আমাদের কথা একটি আদর্শ ও শক্তিশালী গনতান্ত্রিক রাষ্ট্র গঠনে এমন একটি মিডিয়া দরকার যেই মিডিয়া যাবতীয় স্বার্থ বৃত্তের বাইরে অবস্থান করে তুলে ধরবেগন মানুষের ভাষা, গন মানুষের প্রতিধ্বনি। না সরকার, না ব্যবসায়ী, না আমলাতন্ত্র, না সেনাবাহিনী, না রাষ্ট্রীয় মদদে পুষ্ট কোন বাহিনীর, না কোন গোয়েন্দা সংস্থার কিংবা বৈশ্বিক ক্ষমতাধর-আন্তর্জাতিক শক্তিশালী বিস্বব্যাবস্থার, কারও স্বার্থের বন্ধনে আবদ্ধ থাকবে না এই মিডিয়া। সত্য, সুন্দর আর স্বাধিনতার পথে সাতকাহনের অবাধ বিচরন। বর্তমান বিশ্বে যেখানে গনমাধ্যম একটি “ট্রেড সেন্টার” হয়ে উঠেছে, করপোর্যা ট আর বেনিয়াদের মদদে চালিত হয় সেখানে স্বাধীনতা, গনমানুষ আর মুক্ত কথা জিনিসগুলো স্থান পায় না। যেই বেনিয়াদের মদদে চালিত হয় মিডিয়া, যেই ট্রেড কর্পোরেশনের অধিনে পরিচালিত হয় মিডিয়া, যেই কর্পোরেশনের বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে চলে মিডিয়া সেই মিডিয়া কখনও এই বেনিয়া এবং কর্পোরেশনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিতে পারে না। সেখানে স্বাধিনতা আর গন মানুষের কথা কেবল একটি যৌক্তিক ট্রেড মাত্র। সাতকাহন তেমন কোন করপোর্যা ট কিংবা বেনিয়াদের দখলে নেই, কিংবা নেই কোন কর্পোরেশনের মদদে। কিছু মুক্তিকামী সাধারন মানুষের আপ্রান প্রচেষ্টায়, সত্য সুন্দর এবং স্বাধিনতার কথা নিয়ে গন মানুষের পাশেই সাতকাহনের অবস্থান। সাতকাহনের এক একজন পাঠকই সাতকাহনের এক একজন লেখক, কলম ব্যবসায়ী এবং বুদ্ধি ব্যবসায়ীদের মতামতে নয়, গন মানুষের মতামত, তাদের অভিমত তাদের রায় সাতকাহনের চলার পথ রচনা করে। প্রযুক্তির কল্যান, জীবিকার প্রয়োজন এবং সভ্যতার উন্নয়নের জোয়ারে তাল মিলিয়ে বিশ্বের বিভিন্ন দেশে আজ অবস্থান করছে বাংলা ভাষা ভাষী মানুষ। তাদের প্রানের নীরব স্পন্দন এবং তাদের কথা প্রকাশ করতে, হাজার হাজার মাইল দূরে অবস্থান করেও স্বদেশের এবং গন মানুষের কল্যানের প্রতি তাদের আকুতি সবকিছু নিয়ে বিশ্ব বাঙালির এক সেতুবন্ধন রচনা করার লক্ষ্যে এই মিডিয়ার যাত্রা। ট্রেড এর উপর ভর করে প্রতিষ্ঠিত মিডিয়া যেখানে কেবল ঘটনার শুরু করে তলিয়ে যায়, সমস্যাকে তুলে ধরে হারিয়ে যায়, সমস্যার সমাধানের জন্য চটকদার বুদ্ধি ব্যবসায়ীদের শরণাপন্ন হয় সেখানে ঘটনার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত রয়েছি আমরা। সমস্যাকে কেবল তুলে ধরে নয়, বরং সমস্যার প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ সমাধানে আমরা মেলাই তার সমীকরণ, আমরা চটকদার বুদ্ধি ব্যবসায়ীদের ধারে কাছে নয়, আমরা ছুটে চলি গন মানুষের কাছে যাদের রায়ের উপর নির্ভর করে সবকিছু। এটাই আমাদের বিশেষত্ব। প্রতিটি সাধারন থেকে শুরু করে সকল মুক্তিকামী মানুষ সাতকাহনের এক একজন লেখক একজন পাঠক। একজন পাঠকের চাহিদার দিকে লক্ষ্য রেখে রাজনীতি অর্থনীতি থেকে শুরু করে খবরের সকল কাহান এর সংমিশ্রণে প্রতিনিয়ত নতুনত্ব নিয়ে যাত্রা করছে সাতকাহন। একটি বিশ্বব্যাপী পুরনাঙ্গ অনলাইন বাংলা পোর্টাল হিসেবে আমরাই প্রথম অবস্থান করছি। শিল্প-সাহিত্য-কবিতা-উৎসব প্রতিটি বিষয় যেন বাঙালির হৃদয়ের এক একটি স্পন্দন। আর তাই বাঙালির এই সাহিত্য প্রেমের যথার্থ মূল্যায়নে দুই বাংলার সাহিত্য প্রেমি মানুষদের নিয়ে গড়ে উঠেছে সাহিত্যের সাতকাহন যা সাতকাহন সাহিত্য পরিষদ নামেই পরিচিত। সাতকাহন কেবল একটি মিডিয়া নয়। সাধারন মানুষের মুখের ভাষা প্রকাশেই নয় কেবল, বরং অসহায়, শোষিত, সুবিধা বঞ্চিত মানুষের পাশে সহযোগিতা আর সহমর্মিতার হাত বাড়িয়ে দিতে সাতকাহন একটি সংগঠন হিসেবে দাঁড়িয়েছে। একটি আদর্শ ও শক্তিশালী বিকল্প মিডিয়া গড়ার লক্ষ্যে সাতকাহনের প্রকাশনা সমূহ নিম্নরূপঃ সাতকাহন ( www.satkahan.com ) অনলাইন পোর্টাল সাতকাহন (পাক্ষিক কাগজ) জাগৃতা- নারী বিষয়ক অনলাইন ম্যাগাজিন প্রকাশনী- রাজনৈতিক, সাংস্কৃতিক এবং শিল্প সাহিত্য নিয়ে খ্যাতনামা লেখকদের বই প্রকাশ।